ভবন নির্মাণে  চলছে অনিয়মের মহা উৎসব

সংবাদকর্মীদের নানা ভাবে হুমকি

বিশেষ প্রতিনিধিঃ আমেনা খাতুন

নারায়ণগঞ্জ  সিধিরগঞ্জে  মাদানি নগর এলাকায়, হাফেজ মাওলানা এহসান উল্লাহ সাহেবের নির্মাণাধীন বাড়ি নং ৫৪/ব্লক,সি/মাদানিনগর,মাদ্রাসা রোড, সিধিরগঞ্জ, ৩নংওয়ার্ড,নারাঙ্গঞ্জ সিটি কর্পোরেশন, এই বাড়িতে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে মনে হল এ জেনো  অনিয়ম এর এক প্রাসাদে ঢুকে গেলাম কোনও প্রকার নিয়ম নিতির তয়াক্কা নাকরে আইন কানুনকে জেনো বুড় আঙ্গুল দেখিয়ে তাদের ইচ্ছা মত ভবন নির্মাণ করছেন এইসব অনিয়ম এর বিষয় জানতে চাইলে প্রশ্ন এড়িয়ে যায়,পরে সঠিক কাগজ পত্র দেখাবে বলে সময় চায় প্ররবরতি তে যোগাযোগ করলে টাকার প্রলোভন দেখায় সংবাদ কর্মীরা মানতে না চাইলে তাদেরকে, বাদল নামে এক বেক্তি বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে থাকে,এই বিষয়ে মাওলানা এহসান উল্লাহ কে জানাইতে চাইলে তিনি বলেন আমার সাথে কথা বলে লাভ নাই বাদলের সাথে কথা বলেন,এ ছারাও ওই এলাকায় একাধিক ভবন বিভিন্ন অনিয়মের সাথে কাজ ছালিয়ে যাচ্ছে  তাদের সাথে কথা বলতে গেলে কখনো আল্লাহ নামে মান্সম্মান ভিক্ষা চায় কখনো টাকা দিয়ে নিউজ বন্ধ করতে বলা বা অভিযোগ করতে না বলা;কখনো দেখে নেয়ার হুমকি,সংবাদ করমিদের এই ধরনের হুমকির সম্মুখীন হতে হয়,

রাজউক এর সিধিরগঞ্জ মৌজা এর এলাকার অফিসার বিভিন্ন ভাবে অনিয়ম ধরে  ভবন মালিক দের কাছথেকে লাখ লাখ  টাকা নিয়ে থাকেন যা  একাধিক বাড়ির মালিক জানান টাকা না দেয়াতে কিছুদিন আগে অভিযান চালায় রাজউক, কিছু ভবনের অবৈধ অংশ ভেঙ্গে ফেলা হয়, অদৃশ্য কারনে আবার সেই ভবন গুলি আগের রুপ ফিরে পায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারি প্রতেক ভবন থেকে মোটা  অংকরে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রাজউকের কর্মকর্তারা, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু ভবন মালিক বলেন রাজউক এর অনুমোদন মানেই টাকা আপনার যায়গায় প্রব্ল্রম থাকলেও টাকা না থাকলে ও টাকা তাই আমরাও সুযোগ কাজে লাগাই, টাকার কাছে নিরীহ মানুষ গুলা অসহায় যতগুলা নির্মাণাধীন ভবনে সংবাদ কর্মীরা গিয়েছে সেখানেই হয়রানীর স্বীকার হয়েছে কখনো রাজনৈতিক নেতাদের হাতে কখনো বাড়ির মালিকের কাছে, আবার প্রাণে মেরেফালার হুমকিও দেয়া হয়ে হয়েছে, কিন্তু সংবাদ প্রকাশ কি আর থেমে, থাকে আরও কিছু  রগরগা তথ্য নিয়ে আসছি  পরবর্তী পর্বে

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Back to top button
error: দয়া করে নিঊজ কপি করা থেকে বিরতো থাকুন